What is domain ?

ডোমেইন হলো একটি ঠিকানা বা ভার্চুয়াল এড্রেস, যার মাধ্যমে কোনো একটা ওয়েবসাইট কে খুজে পাওয়া যায় । আরো পরিস্কারভাবে বলা যায় ডোমেইন নাম বলতে কোন একটা ওয়েবসাইটের নামকে বোঝায়। ডোমেইন নাম ক্লাইন্ট কম্পিউটারকে ওয়েব সার্ভারের সাথে সংযোগ স্থাপন করতে সাহায্য করে। একটি ডোমেইন নাম সংক্রান্ত সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করে ডোমেইন নেম সিস্টেম।

প্রত্যেক ওয়েবসাইটের একটি নির্দিষ্ট আইপি অ্যাড্রেস থাকে। কিন্তু আইপি দিয়ে ওয়েবসাইট মনে রাখা কষ্টসাধ্য। তাই মনে রাখার সুবিধার জন্য আইপি অ্যাড্রেসের পরিবর্তে ডোমেইন নাম ব্যবহার করা হয়। এছাড়া এক বা একাধিক কমপিউটার কে ইন্টারনেট এ চেনার জন্যও ডোমেইন নাম ব্যবহার করা হয়।

প্রথম বাণিজ্যিক ডোমেন নাম হল Symbolics.com যা ক্যাম্ব্রিজের কম্পিউটার ফার্ম সিম্বোলিক্স ১৫ মার্চ ১৯৮৫ তারিখে  TLD com তে নিবন্ধন করে।  ২০১৯ সালে জুনের দিকে প্রায় টপ লেভেল ৩৫৪.৭ মিলিয়ন ডোমেইন নেম নিবন্ধিত হয়।

ইউ আর এল এবং ডোমেইন

নিচের উদাহরণ দ্বারা ইউআরএল এবং ডোমেইন এর পার্থক্য প্রকাশ করা যেতে পারে।

একটি ডোমেইন এর চারটি অংশ থাকে ।

(a)http://, (b)www, (c) itlabdhaka, (d).com

  1. http:// হলো- A domain name is part  and called as a URL, which stands for Uniform Resource Locator.
  2. www-হলো হোস্ট- world wide web
  3. itlabdhaka হলো মেইন ডোমেইন নেইম, এটাই হলো আপনার কোম্পানির ইউনিক নাম বা ঠিকানা
  4. .com এটা হলো একটি ডোমেইন এর এক্সটেনশন যেটাকে আমরা বলি TLD যার অর্থ হলো Top Level Domain

যেখান থেকে ডোমেইন প্রদান করা হয় এবং নিয়ন্ত্রন করা হয় তাকে সংক্ষেপে ICANN নামে ডাকা হয় যার পূর্নরুপ হলো-The Internet Corporation for Assigned Names and Numbers(That is an American multistakeholder group and nonprofit organization)

সাধারণত ডোমেইন দুই ধরনের হয় যেমন ইন্টারন্যাশল এবং লোকাল ।ইন্টারন্যাশল ডোমেইন যেমন .com, .net, .info, .org, .biz এবং লোকাল ডোমেইন হলো .uk, .us, .in, .bd সাধারণত এই ডোমেইন গুলো নিজ নিজ দেশের সরাকারি সংস্থ্যা দারা নিয়ন্ত্রিত হয় যেমন আমাদের দেশের সরকারি সংস্থ্যা বিটিসিল থেকে আমাদের লোকাল ডোমেইন নিবন্ধন করতে হয়। মনে করেন আপনার একটি ব্যবসায়ের নামে ডোমেইন নিবন্ধন করবেন যেমন ‍amarmoto.com একটি ইন্টারন্যাশল ডোমেইন এটা নিতে চাচ্ছেন কিন্তু এটা অন্য কেউ করে ফেলেছে তখন আপনি চেষ্টা করবেন লোকাল ডোমেইন নেওয়ার জন্য যেমন- ‍amarmoto.com.bd, এভাবে আপনি একটি ইন্টারন্যাশল ডোমেইন না পেলে একটি লোকাল ডোমেইন আপনার জন্য নিবন্ধন করে নিতে পারেন, কারণ একটি ডোইমেন একটি ব্যবসায়ের অবেচ্ছেদ্য অংশ যার গুরুত্ব বলে শেষ করা যাবেনা।

আর একটি অংশ হলো ডিএনএস যার অরথ হলো ডোমেইন নেইম সিস্টেম, যার কাজ হলো ডোমেইন নেমের সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য রাখার ব্যবস্থা ।

এটি মূলত ফোন বুকের মত কাজ করে। এটি সাধারণ মানুষের বোধগম্য কম্পিউটারের হোস্টনেম যেমন itlabdhaka.com কে কম্পিউটারের উপযোগী আইপি এড্রেসে যেমন 201.77.188.166 রুপান্তর করে দেয়, যার মাধ্যমে নেটওয়ার্কিং যন্ত্রাংশগুলি তথ্য বিনিময় করে থাকে। এছাড়া ডিএনএস অন্যান্য তথ্যও রাখে, যেমন মেইল সার্ভারের তালিকা ইত্যাদি। ডিএনএস কিওয়ার্ড ভিত্তিক পুননির্দেশনা ব্যবস্থা পালন করে। বর্তমান ইন্টারনেট ব্যবস্থায় ডিএনএস একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ।

ডিএনএস ফলেই কোন সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানকে নেটওয়ার্কের রাউটিং কি রকম হবে সেটি সম্পর্কে চিন্তা না করেও ডোমেইন নাম দেয়া যায়। নেটওয়ার্কের রাউটিং নির্ভর করে সংখ্যাভিত্তিক আইপি এড্রেসের উপরে। একারণে আইপি এড্রেস কোন কারণে পরিবর্তিত হলেও একই হাইপারলিংক বা ইন্টারনেট এড্রেস দিয়ে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যায় বা মেইল পাঠানো যায়। সুতরাং নেটওয়ার্কের বাহ্যিক আকারের বা গঠনের ওপরে ওয়েবসাইটকে নির্ভর করতে হয় না। এছাড়া আইপি এড্রেসের তুলনায় ডোমেইন নেম অনেক সহজ হয়ে থাকে। যেমন “itlabdhaka.com” মনে রাখা যতটা সোজা এর আইপি এড্রেস 201.77.188.166 মনে রাখাটা ততটা সোজা হবে না। সাধারণ মানুষ ইউআরএল ও ইমেইল এড্রেস মনে রাখে, কম্পিউটার কিভাবে তা খুজে বের করবে তা চিন্তা করে না।

ডোমেইন নেম সিস্টেমে বিভিন্ন ডোমেইন নেম দেয়া ও সেগুলোকে আইপি এড্রেসের সাথে একীভূত করার কাজটি কয়েকটি অথরিটিভ নেম সার্ভারকে ভাগ করে দেয়া হয়। এসব সার্ভার আলাদাভাবে ডোমেইন নেম নিবন্ধন, পরিবর্তন করার কাজটি করে থাকে ফলে একটি কেন্দ্রীভূত সার্ভারের প্রয়োজন পড়ে না।